গ্রেডের তফাৎ BAUST এ ভাইবা না দেওয়া সেই নার্সরা ফেরত নিলেন আবেদনের টাকাও,৪দফা দাবি নার্সদের

বিজ্ঞাপন দাতা প্রতিষ্ঠান কে দ্রুত যোগাযোগ করার অনুরোধ জানানো হইলো

বাংলাদেশ আর্মি ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি ১৪ জুলাই প্রকাশিত নার্স নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি তে আবেদন করেন প্রায় ১৮৬ জন নার্স।

সার্কুলারে বেতন, গ্রেড কিংবা পদসংখ্যা কোনো কিছুই উল্লেখ করেনি কর্তৃপক্ষ।

পরবর্তী ৫০০ টাকা করে ব্যাংক ড্রাফট করে আবেদন করেন ১৮৬ জন (ফিমেল) নার্স।

লিখিত পরীক্ষা শেষে ভাইবা পরীক্ষার জন্যে সিলেক্ট করা হয় ১১জন নার্স কে।

তারা সবাই ভাইবা বোর্ডে গেলে একে একে বেরিয়ে আসতে থাকতে থলের বিড়াল।

শুরুতে পদসংখ্যা ১জন বলে জানতে পারেন প্রার্থীগণ যা বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ ছিলো না।পরবর্তীতে বেতন অফার করা ১৪৯২০ টাকা।

এসব শুনে ১১জন প্রার্থীর কেউ ই আর ভাইবা পরীক্ষায় বসতে রাজি হয় নাই উল্টো আবেদনের ৫০০ টাকা ও ৪দফা দাবি জানিয়ে বসলেন তারা।

দাবিগুলো হলোঃ
১. নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে সরকার নির্ধারিত গ্রেড উল্লেখ পূর্বক সার্কুলার দিতে হবে।
২.পদসংখ্যা নির্দিষ্ট করে পুনরায় সার্কুলার প্রদান
৩.বেতন বৈষম্য দূরীকরণ।
৪.নার্সদের চাকুরীর নামে হয়রানী বন্ধ।

কর্তৃপক্ষ সকল দাবী মানার আশ্বাস দিয়ে ভাইবা তে সিলেক্ট হওয়া ১১জনের ব্যাংক ড্রাফট ৫০০ করে ফেরত দেন এবং সর্বমোট ১৮৬ জন আবেদনকারীর টাকাও ফেরত দিবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

সময়ের সাহসী এমন সিদ্ধান্তে বাহবা পাচ্ছেন এসকল নার্সগণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.