আবাসিক হোটেল থেকে নারী চিকিৎসকের লাশ উদ্ধার

রাজধানীর পান্থপথে একটি আবাসিক হোটেল থেকে একজন নারী চিকিৎসকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সদ্য এমবিবিএস পাস করা ওই চিকিৎসকের নাম জান্নাতুল নাঈম সিদ্দীকা (২৭)।

বিজ্ঞাপন দাতা প্রতিষ্ঠান কে দ্রুত যোগাযোগ করার অনুরোধ জানানো হইলো

কলাবাগান থানার সহকারী উপরিদর্শক (এএসআই) কাজী বখতিয়ার হোসেন আজ বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) সকালে মেডিভয়েসকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি মগবাজার কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে এমবিবিএস পাস করে ঢাকা মেডিকেল কলেজে (ঢামেক) স্ত্রী ও গাইনি বিষয়ে একটি কোর্সে অধ্যয়নরত ছিলেন।

এএসআই বখতিয়ার জানান, বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে খবর পেয়ে পশ্চিম পান্থপথে ‘ফ্যামিলি অ্যাপার্টমেন্ট সার্ভিস’ নামে একটি আবাসিক হোটেল তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

জান্নাতুল নাঈম সিদ্দীকা বাবা-মায়ের সঙ্গে রাজধানীর শাহজাহানপুরে বসবাস করেন।

এএসআই বখতিয়ার আরও জানান, হোটেলটির চতুর্থতলার ৩০৫ নম্বর কক্ষের বিছানার ওপর থেকে ছুরিকাঘাত ও গলাকাটা অবস্থায় ওই চিকিৎসকের লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের শরীরে আঘাতের একাধিক চিহ্ন রয়েছে। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আলামত সংগ্রহ করেছে।

তিনি আরও জানান, হোটেলটিতে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে রেজাউল করিম রেজা নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে উঠেছিলেন জান্নাত। সেখানে জান্নাতুলকে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায় রেজাউল।

মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান এএসআই বখতিয়ার।

এদিকে ঘটনার পরপরই নিহতের পরিবারের সদস্যরা থানায় আসেন। এ ঘটনায় মেয়ের পিতা ডা. শফিকুল ইসলাম মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আবু জাফর জানান, আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। কার্যক্রম নির্বিঘ্নে এগিয়ে নেওয়ার স্বার্থে বেশি কিছু জানাতে অপরাগতা প্রকাশ করেন তিনি। জানান, সময় হলে গণমাধ্যমকে সবই জানানো হবে।

তথ্যসূত্রঃ মেডিভয়েচ

Leave a Reply

Your email address will not be published.