রোষ্টার ডিউটি অফ ডে’তেও ফিঙ্গারপ্রিন্ট দেওয়ার নির্দেশ – নার্সিং সুপারভাইজারের

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অষ্টগ্রাম,কিশোরগঞ্জ এর নার্সিং সুপারভাইজার শামীমা রানী দাস তার ওয়ার্ডে দ্বায়িত্বরত সকল নার্সিং কর্মকর্তার জন্যে নোটিশ ঝুলিয়ে জানিয়েছে সরকারি ছুটির দিন ব্যতীত ডে অফ থাকলেও ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিতে।

এদিকে এই বিষয় কে বিধিবহির্ভূত বলছে সাধারণ নার্সরা

হাসপাতালে নার্সগন শিফট ডিউটি করে থাকে ( সকাল- বিকাল-রাত) যার যখন ডিউটি তখন Finger print দিয়ে থাকি, অষ্টগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, কিশোরগঞ্জের এক সহকর্মীর সাথে কথা বলে জানতে পারলাম যখনই ডিউটি থাক না কেন তাদের সকলকে সকালে ফিঙ্গার প্রিন্ট বাধ্যতামূলক দিতে হয়।

ডে অফ থাকলেও ফিঙ্গার প্রিন্ট দেওয়ার নির্দেশনা

তারপর আবার যদি বিকাল বা রাএীকালীন ডিউটি থাকে তখন পুনরায় আবার ফিঙ্গার প্রিন্ট দিতে হয়। শুধু তাই নয় নার্সদের অফ ডে ( শিফট ম্যানেজ সাপেক্ষে) থাকে সে দিন ও বাসা থেকে এসে ফিঙ্গার প্রিন্ট দিতে হয়।

ফিঙ্গারপ্রিনন্ট দেওয়া মানে আমার ডিউটি চলছে ফিঙ্গার প্রিন্ট দিয়ে সকালে বাসায় চলে যাওয়া নিয়ম বহিভূত নয় কি?

আপনার ডিউটি বিকাল বা রাত আপনি কেন সকালে ফিঙ্গার পিন্ট দিবেন?
প্রায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ এভাবে বাধ্য করছেন উপজেলা স্বাস্থ্য পঃ পঃ কর্মকর্তা সহ কিছু নার্সিং সুপারভাইজারগণ।

এ বিষয় এ দ্রুত ডিজিএনএম এর হস্তক্ষেপ চান সাধারণ ও ভুক্তভোগী নার্সিং কর্মকর্তারা।

One thought on “রোষ্টার ডিউটি অফ ডে’তেও ফিঙ্গারপ্রিন্ট দেওয়ার নির্দেশ – নার্সিং সুপারভাইজারের

Leave a Reply

Your email address will not be published.