একই পরিবারের ৪ জনই ভুয়া চিকিৎসক

লক্ষ্মীপুরে এমবিবিএস ডিগ্রি ছাড়াই একই পরিবারের চার সদস্য বিভিন্ন জটিল রোগের চিকিৎসা দেওয়ার অভিযোগে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। রবিবার (৭ আগস্ট) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সিরাজুল সালেহীন এ আদেশ দেন। এ সময় ওই প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। একই সঙ্গে তাদের ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযুক্তরা হলেন, অনিতা রানী শর্ম্মাধিকারী, রণজিৎ শর্ম্মাসধিকারী, সুমিতা রানী শর্ম্মাধিকারী ও প্রণব শর্ম্মাধিকারী। তারা সবাই একই পরিবারের সদস্য।

সিরাজুল সালেহীন সিরাজুল সালেহীন জানান, শর্ম্মা মেডিকেল হলে অভিযুক্ত চারজন নিজেদের চিকিৎসক দাবি করে অর্শ, গেজ, ওরিশ ও ভগন্দরসহ বিভিন্ন জটিল রোগের চিকিৎসা করে আসছেন। তিনি আরও জানান, রায়পুরের নতুন বাজার এলাকায় তাদের আরও একটি চেম্বার রয়েছে। তাদের প্রাতিষ্ঠানিক কোনো ডিগ্রি ও সনদ নেই। কিন্তু তারা বিভিন্ন সময় রোগীদের অপারেশনও করিয়েছেন।

লক্ষ্মীপুর জেলা সিভিল সার্জন ডা. আহমেদ কবির বলেন, শর্ম্মা মেডিক্যাল হলের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল। অভিযোগের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালিয়ে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ২০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। অপরাধীরা মুচলেকা দিয়েছেন। তারপরও তারা যাতে প্রতারণামূলক কোনো কার্যক্রম চালাতে না পারেন সেদিকে নজরদারি থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.