নার্স শব্দ ব্যবহার করে সংবাদ প্রচারে সচেতন হবার আহবান

দেশের বিভিন্ন অনলাইন স্বীকৃত ও জাতীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল এ নার্সদের নিয়ে সংবাদ প্রচার করা হয় যা নার্সদের জন্যে অত্যন্ত দুঃখের। যে কাউকে নার্স বানিয়ে সংবাদ প্রচার না করতে ও নার্স শব্দ ব্যবহার করে সংবাদ প্রচারের পূর্বে যাচাই বাছাই করে যথাযথ সংবাদ প্রচার করতে আহবান জানিয়েছেন সচেতন নার্সরা।নিচে তাদের বিবৃতি তুলে ধরা হলোঃ-

 

আসসালামু আলাইকুম সকল কে হ্যালো নার্সিং বাংলাদেশের পক্ষ থেকে পবিত্র ঈদ-উল-আযহার শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। আমরা অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে ইদানীং দেশের বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে কর্মরত যে কারো দ্বারা কোনো অপকর্ম,ভুল সেবায় রোগীর মৃত্যু, আত্মহত্যা সহ নানা অপকর্মে জড়িতদের বিভিন্ন অনলাইন পোর্টাল ও বেশকিছু জাতীয় অনলাইন পোর্টালে তাদের কে নার্স হিসেবে দাবি করে খবর প্রচার করা হচ্ছে কোনো রকম যাচাই-বাছাই ছাড়াই। পরবর্তী তে খোজ নিলে দেখা যায় তারা রেজিস্টার্ড কোনো নার্স নয় অর্থাৎ পেশাগত সনদ তাদের নাই।বাংলাদেশ নার্সিং ও মিডওয়াইফারি কাউন্সিল আইন ২০১৬(কপি সংযুক্ত) অনুযায়ী পেশাগত সনদ ব্যতীত কোন ব্যক্তি নার্সিং কর্মকাণ্ড অথবা নার্স পদবী ব্যবহার করে কোথায় কাজ করলে তা আইননুসারে শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এমতাবস্থায় আমরা মনে করি এসব ঘটনায় নার্স শব্দ ব্যবহার করে খবর প্রকাশ করায় বাংলাদেশের নার্সরা সামাজিকভাবে হেয় হচ্ছেন এবং নার্সদের সম্মানহানি হচ্ছে বলে আমরা মনে করি।

দেশের বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও জাতীয় সংবাদ মাধ্যমের প্রতি বিশেষ দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চাই ভবিষ্যৎ এ নার্স শব্দ ব্যবহার করে সংবাদ প্রচারের পূর্বে উক্ত ব্যক্তি বাংলাদেশের রেজিস্টার্ড নার্স কি না তা দেখে সংবাদ প্রচারের অনুরোধ করছি।আইন শৃঙ্খলা বাহিনী,সিভিন সার্জন, ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর ও সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি উদাত্ত আহবান ও বিশেষ অনুরোধ জানাচ্ছি যে বেসরকারি হাসপাতালে পেশাগত সনদ ব্যতীত যাহারা নার্সিং সেবা ও নার্স পদ ব্যবহার করে রোগী ও অসুস্থ অসহায় মানুষের সেবার নামে প্রতারণা করে আসছে তাদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইন অনুযায়ী যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে নার্সিং সমাজের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল ও রোগীর সঠিক সেবা নিশ্চিত এ করে সরকারের স্বাস্থ্যসেবার উদ্দেশ্য পূরন হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.