আবারো ৪হাজার চিকিৎসক ও আট হাজার নার্স নিয়োগ দেওয়া হবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহেদ মালেক

চিকিৎসক, নার্স, মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট ও টেকনোলজিস্টসহ দেশে শিগগিরই আরও ২০ হাজার নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

আজ সোমবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে বাংলাদেশ সোসাইটি অব মেডিসিনের এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

নিজের আমলে সবচেয়ে বেশি স্বাস্থ্যকর্মী নিয়োগ পাওয়ার দাবি করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘স্বাস্থ্যে আমার সময়ে যে নিয়োগ হয়েছে, দেশের ইতিহাসে এত নিয়োগ হয়নি। সবচেয়ে বেশি নার্স, চিকিৎসক আমার সময়ে হয়েছে। সবচেয়ে বেশি পদোন্নতি আমার সময়ে হয়েছে। যদি প্রমাণ চান, তাহলে পরিসংখ্যান দেখুন।’

মন্ত্রী বলেন, ১৫ হাজার চিকিৎসক, ২০ হাজার নার্স একবারে নিয়োগ হয়েছে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ইতিহাসে এমনটি নেই।

স্বাস্থ্য খাতে শিগরিগই আরও নতুন নিয়োগ আসছে জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, চার হাজার চিকিৎসক নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে, নতুন করে আরও আট হাজার নার্স নিয়োগ দেওয়া হবে।

জাহিদ মালেক বলেন, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় সফল। জনসংখ্যার হিসাব করলে পৃথিবীর অনেক দেশ থেকে বাংলাদেশ সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে অনেক বেশি কাজ করেছে। হয়তো চীনেরও নিচে থাকতে পারে। কারণ চীনের হিসাবটা একটু আলাদা।

তিনি আরও বলেন, শূন্য থেকে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা শুরু করেছিল বাংলাদেশ। একটি ল্যাব থেকে এখন ৮০০টি ল্যাব করা হয়েছে। দিনে ২০ থেকে ৫০ হাজার টিকা দেওয়ার মতো সামর্থ্য তৈরি হয়েছে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো লোকমান হোসেন মিয়া, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.