বর্তমান নার্সিং শিক্ষা সরকারি ও বেসরকারি সম্পর্কে,নার্সিং এর ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা জেনে নিন বিস্তারিত

নার্সিং একটি বাস্তবমুখী ও সেবাধর্মী পেশা যেখানে চাকুরীর পাশাপাশি অসুস্থ মানুষের সেবার দারুন সুযোগ মিলে।বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশেও নার্সিং পেশা দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

আমরা আজ আলোচনা করবো কোথায় নার্সিং পড়বেন,নার্সিং পেশার মান,সরকারি -বেসরকারী নার্সিং কলেজ/ইন্সটিটিউট এর মান সম্পর্কে।

কোথায় নার্সিং পড়বেনঃ

নার্সিং পড়তে হলে আপনাকে এইসএসসি পাস সহ অনেক কিছু ক্রাইটেরিয়া পূরণ করে বাংলাদেশ নার্সিং ও মিডওয়াইফারি কাউন্সিলের অধীনে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে মেধা তালিকার ভিত্তিতে সরকারি নার্সিং এ ভর্তির সুযোগ মিলবে।এছাড়াও যারা উক্ত পরীক্ষায় পাস মার্ক(৪০) পাবে তারা বেসরকারিভাবে নার্সিং পড়ার সুযোগ পাবেন।

নার্সিং পেশার মানঃ

বিশ্বের ১০ টি সম্মানিত পেশার মধ্যে নার্সিং পেশা অন্যতম।
বাংলাদেশের মানুষ পূর্বে নার্সিং কে খারাপ চোখে দেখলেও বর্তমানে দৃষ্টিভঙ্গীর পরিবর্তন হয়েছে।বাংলাদেশ সরকার ২০১০ সালে নার্সদের ১০গ্রেডে ২য় শ্রেনীর অফিসার পদে উন্নীত করেন।যা পূর্বে ৩য় শ্রেনী ছিলো।অর্থাৎ আপনি পাস করে সরকারি চাকুরী তে ২য় শ্রেনীর অফিসার পদে নিয়োগ পাবেন।

সরকারি /বেসরকারি নার্সিং শিক্ষার মান কী এক??

বাংলাদেশ নার্সিং ও মিডওয়াইফারি কাউন্সিল বিএনএমসির অধীনে নার্সিং শিক্ষা-কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে থাকে।যেখানে প্রতিবছর নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থী সরকারি নার্সিং কলেজ/ইন্সটিটিউট এ পড়ার সুযোগ পান,বাকি যারা সরকারিভাবে পড়ার সুযোগ পান না তারা বেসরকারি নার্সিং কলেজ ইন্সটিটিউট পড়ে নিজের ক্যারিয়ার গড়তে পারেন।বেসরকারিভাবে নার্সিং পড়াশোনা করলে আপনি সকল জায়গায় অর্থাৎ সরকারিভাবে যারা পড়বে তাদের মতই তাদের মান ই পাবেন।পার্থক্য শুধু আপনাকে বেসরকারিতে টাকা দিয়ে পড়তে হবে এবং সরকারি তে ফ্রি তে পড়াশোনা করতে পারবেন।

অনার্স ভালো নাকি নার্সিংঃ

নার্সিং এমন একটি পেশা যেখানে আপনি বেকার থাকার কোনো সুযোগ নেই।অনার্স করলে আপনার চাকুরীর নিশ্চয়তা নেই বললেই চলে তবে নার্সিং পড়াশোনা শেষ করে কেউ বেকার নেই।

সিদ্ধান্ত আপনার সঠিক একটি সিদ্ধান্ত বদলে দিবে আপনার জীবন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.