নাটোরের বড়াইগ্রামে দুই ভূয়া র‍্যাব সদস্য গ্রেফতার

জাহিদ হাসানঃ নাটোরের বড়াইগ্রামে দুই ভূয়া র‍্যাব সদস্যকে আটক করেছে র‍্যাব-৫ এর সিপিসি-২ (নাটোর) ক্যাম্পের একটি অভিযানিক দল। রোববার সন্ধ্যার পর উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃত দুই ভূয়া র‍্যাব সদস্যরা হলেন পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার হলুদগড় গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে সেলিম মোরশেদ (৩৪) এবং একই উপজেলার গোপালপুর গ্রামের সোহরাব আলী মাস্টারের ছেলে এরশাদ আলী (৩৫)।

বড়াইগ্রাম উপজেলার নগর ইউপি চেয়ারম্যান নীলুফার ইয়াসমিন ডালু জানান, গত শুক্রবার সকালে সেলিম ও এরশাদ সাধারণ পোশাকে মোটরসাইকেলে চড়ে আমার পরিষদে আসেন। তাঁরা নিজেদের র‍্যাব নাটোর ক্যাম্পের গোয়েন্দা শাখার কর্মকর্তা বলে পরিচয় দেন। পরে তারা পরিষদের চলমান কর্মকাণ্ড বিষয়ে খোঁজ নেন। বিদায় নেওয়ার সময় আমি এক হাজার টাকা দিয়ে দুপুরে খাবার খেয়ে নিতে বলি।

এ সময় সেলিম মোরশেদ একটু বেশি টাকা চেয়ে বলেন আমার মোটরসাইকেলের ব্যাটারি বদল করতে হবে। আমি আরও দুই হাজার টাকা দেই। পরে তারা জোনাইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হকের কাছ থেকে বিভিন্ন অজুহাতে ৫ হাজার টাকা নিয়ে যান। তারা আবার গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদে গেছে জানতে পেরে আমার সন্দেহ হয়। তখন আমি বিষয়টি থানা-পুলিশ এবং নাটোর র‍্যাব অফিসকে জানাই। পরে সন্ধ্যায় নাটোর থেকে র‍্যাবের একটি টিম সেলিম ও এরশাদকে গোপালপুর ইউপি কার্যালয় থেকে আটক করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.