মাদক সেবনের ৬৫ টাকার জন্য বন্ধুকে হত্যা

Spread the love

জামালপুর: মাদক সেবনের জন্য ধার নেওয়া মাত্র ৬৫ টাকা দিতে না পারায় বন্ধুকে হত্যার পর তার মরদেহ নদীতে ফেলে দিয়েছে আরেক বন্ধু। এই নির্মম হত্যাকাণ্ড ঘটেছে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে।

ঘাতক বন্ধু রিয়াদ র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তারের পর হত্যার কথা স্বীকার করেছে। র‌্যাব-১৪ জামালপুরের কোম্পানি কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার আশিক উজ্জামান জানান, দেওয়ানগঞ্জের ভাঙ্গারচর গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে রুবেল (১৬) ও নয়াপাড়া গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে মো. রিয়াদ (১৬) স্থানীয় বাহাদুরাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র।

তারা দুই বন্ধু শেয়ারে গাঁজা সেবন করতো। রুবেলের কাছে ৬৫ টাকা পেত রিয়াদ।

গত ২ জুন সন্ধ্যার পর রুবেল ও রিয়াদ স্থানীয় দফাদার ঘাটে বসে গাঁজা সেবন করে। এক পর্যায়ে পাওনা ৬৫ টাকা দিতে না পারায় রুবেলকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মরদেহ বহ্মপুত্র নদে ফেলে দেয় রিয়াদ।
গত ৪ জুন বকশিগঞ্জ উপজেলার মাইছানিরচর এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে রুবেলের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করে বকশীগঞ্জ থানার পুলিশ।

র‌্যাব জানায়, এ ঘটনায় মঙ্গলবার গভীর রাতে নিজ বাড়ি থেকে রিয়াদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে র‌্যাব। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রিয়াদ বন্ধু রুবেলকে নির্মমভাবে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.