ঢাকা নার্সিং কলেজের বিএসসি ৭ম ব্যাচের শিক্ষার্থী নার্সিং রাফি খন্দকার বাঁচতে চায়

Spread the love

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের বিএসসি নার্স মোছাঃ রাফি আজমিরা খন্দকার ইমু বাঁচতে চায়। উপজেলার রানীগঞ্জ নুরপুর গ্রামের মৃত রাজা মিয়া খন্দকার রাজুর মেয়ে। ভাগ্যের পরিহাস বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে নিজেই আজ মৃত্যুযাত্রী। ঢাকা নার্সিং কলেজের এ- ৭ ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ।

ভর্তির জন্যে যোগাযোগ করুন ০১৮৬৭৯০২৯৬২

বর্তমানে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট এ কর্মরত।তার দুটো কিডনি অচল হয়েছে। ২০২১ সালে তার বাবা রাজা মিয়া খন্দকার রাজু করোনায় আক্রান্ত হন, মেয়ে ইমু খন্দকার তার কর্মস্হলে নিয়ে গিয়ে বাবা সেবা যত্ন এবং চিকিৎসা করেন। শত চেষ্টায় বাবা কে বাঁচতে পারেননি। বাবার মৃত্যুর পর নিজেই (ইমু) করোনায় আক্রান্ত হন। ৪ মাসের প্রেগন্যান্সিতে গর্ভপাত হয়।

অভাবের সংসারে সপ্তাহে ২ টি করে ডায়ালাইসিস করতে হয়। চিকিৎসকের পরামর্শ রাফি আজমিরা ইমু খন্দকারের কিডনি দ্রুত সংযোজন করতে হবে। তার মায়ের সাথে জেনেটিক সমস্যার কারণে কিডনি বদলি করা সম্ভব হয়নি। দিন দিন রাফির অবস্হার অবনতির পথে। দ্রুত কিডনি সংযোজন করার জন্য দেশের বাহিরে যেতে হবে। অনেক ব্যয় বহুল হওয়ায় তার পরিবার দেশের বাহিরে নিয়ে যেতে পারছেন না। রাফি আজমিরা ইমু খন্দকার বাঁচতে চায়। সকলের দোয়ায় সুস্থ হয়ে পুনরায় দেশ ও দশের সেবা করতে চায়।

তার পরিবারের সদস্যরা জানান, রাফি আজমিরা ইমু খন্দকারের দুটো কিডনি সংযোজনের জন্য ৩৫ লক্ষ টাকার প্রয়োজন।দেশবাসী সহ বিত্তশালী দয়াবান ব্যক্তির আর্থিক সহযোগিতা কামনা করেছেন। রাফি আজমিরা ইমু খন্দকার কে বাঁচতে এগিয়ে আসুন, বাড়িয়ে দিন মানবতার হাত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.